সালমান শাহকে নিয়ে কোনো আয়োজন নেই সিলেটে!

সালমান শাহকে নিয়ে কোনো আয়োজন নেই সিলেটে!

ব্রেকিংস ডেস্ক:

 


বাংলা চলচ্চিত্রের উজ্জ্বল নক্ষত্র ক্ষণজন্মা চিত্রনায়ক সালমান শাহর ২৫তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর)। কিন্তু এবার তার মৃত্যুবার্ষিকীতে সিলেটে নেই কোনো আয়োজন। এর কারণ হিসেবে সংশ্লিষ্টরা করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কথা বলছেন। এমনকি সিলেট নগরীর দাঁড়িয়াপাড়াস্থ সালমান শাহ ভবনেও প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না কোনও ভক্ত বা পর্যটককে।

বলা হয়ে থাকে, তারকার মৃত্যুর পর ধীরে ধীরে ভক্তরা ভুলতে শুরু করেন। তবে সালমান শাহর ক্ষেত্রে তা একেবারে বিপরীত! তার জনপ্রিয়তা এখনও আকাশমুখী। ভক্ত-সমালোচকরা তার স্মৃতিগুলো এখনও লালন করেন পরম মমতায়। এক ধরনের অলিখিত সংগ্রহশালায় পরিণত হয়েছে দাঁড়িয়াপাড়াস্থ বাড়িটি। নায়কের প্রাপ্তির সব স্মারক আর পুরস্কারে পূর্ণ এ বাসার শোকেস। দেয়ালজুড়ে সেঁটে রাখা হয়েছে বিভিন্ন সময়ের সালমান শাহর ছবি। ড্রেসিং টেবিল, ব্যবহৃত বইও আছে। বাড়িটিতে সালমান শাহর ব্যবহৃত খাট-চেয়ার ও কিছু তৈজসপত্রের দেখাও মেলে।  

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কাল রবিবারও (৫ সেপ্টেম্বর) দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আসা ভক্তদের সালমান শাহ ভবন থেকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়।

এ প্রসঙ্গে সালমান শাহর মামা আলমগীর কুমকুম বলেন, ‘সালমান শাহকে এখন মানুষ অন্তর থেকে শ্রদ্ধা করে, ভালোবাসে। মানুষ মরে গেলে শ্রদ্ধা আর ভালোবাসা কমে গেলেও সালামান শাহর প্রতি তা কমে যায়নি বরং বৃদ্ধি পেয়েছে দিনে দিনে।’

তিনি বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে এবার সিলেটে সালমান শাহর কোনও মৃত্যুবার্ষিকী পালন করা হবে না। তবে সবাই যেন তার আত্মার মাগফেরাত কামনা করে যার যার অবস্থান থেকে দোয়া করেন।

কুমকুম আরও বলেন, ‘আমাদের ইমনকে (সালমান শাহকে) যেভাবে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে এর যথাযথ বিচার এখনও হয়নি। আমরা চাই অপরাধীদের দ্রুত বিচার করা হোক। ভক্তরা দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে এখনও আসেন। আমি তাদের আবেগকে শ্রদ্ধা জানাই। তারা যে এখনও সালমানকে মনে রেখেছেন, এটা ভাবলেও গর্ব হয়।’

জানা গেছে, সালমান শাহ নামটি ছিল সিনেমার জন্য। এই নায়কের প্রকৃত নাম ছিল শাহরিয়ার চৌধুরী ইমন। ১৯৭০ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর তিনি সিলেটের জকিগঞ্জে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা কমর উদ্দিন চৌধুরী ও মা নীলা চৌধুরী।

মাত্র তিন বছর বড় পর্দায় কাজ করার সুযোগ পেয়েছিলেন সালমান শাহ। এই অল্প সময়েই তিনি দর্শকদের হৃদয় জয় করে একের পর এক উপহার দিয়েছেন নানা সুপারহিট সিনেমা। অভিনয় করেছেন মোট ২৭টি সিনেমায়।

দেশীয় সিনেমায় ধূমকেতু হয়েই যেন ধরা দিয়েছিলেন সালমান শাহ। ১৯৯৩ সালে সোহানুর রহমান সোহান পরিচালিত ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ সিনেমার মাধ্যমে ঢালিউডে পা রাখেন তিনি।