প্রতিষ্ঠার শুরু থেকেই বাংলাদেশবিরোধী অপতৎপরতায় আল জাজিরা (ভিডিও)

প্রতিষ্ঠার শুরু থেকেই বাংলাদেশবিরোধী অপতৎপরতায় আল জাজিরা (ভিডিও)

ব্রেকিংসডেস্ক:  প্রতিষ্ঠার শুরু থেকেই বাংলাদেশবিরোধী অপতৎপরতায় জড়িত কাতার ভিত্তিক টেলিভিশন আল জাজিরা। ব্রিটিশ সাংবাদিক ডেভিড বার্গম্যান, বিএনপি ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ঘণিষ্ঠ সহযোগী ও ব্যবসায়ীক অংশীদার ইউরোপ প্রবাসী সামি, পিনাকী ভট্টাচার্য্য ও তাসনিম খলিল- এই চার নাম ঘুরেফিরে আসছে টেলিভিশনটির বাংলাদেশবিরোধী অপতৎপরতায়।

২০১৩ সালের ৫ মে, যুদ্ধাপরাধের বিচার বানচাল করতে ঢাকা অবরোধ কর্মসূচির নামে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে তাণ্ডব চালায় হেফাজতে ইসলাম।

৬ মে। হেফাজতি তাণ্ডবের খণ্ডচিত্র এটি। 

হেফাজতিদের তাণ্ডব নিয়ে কাতারভিত্তিক টেলিভিশন চ্যানেল আল জাজিরা কোন প্রতিবেদন প্রচার করেনি। তবে ৫ মে শত শত হেফাজতি নিহত হয়েছে- এরকম অসত্য প্রতিবেদন প্রচার করে টেলিভিশন চ্যানেলটি। আর এক্ষেত্রে সাংবাদিকতার নীতি-নৈতিকতার ধার ধারেনি আল-জাজিরা।

জুরাইন কবরস্থান প্রতিবেদনে বাক প্রতিবন্ধীর সাক্ষাৎকার। ইশারায় তার কাছ থেকে দেখানোর চেষ্টা- শত শত লাশ দাফন করা হয়েছে। অথচ ওই বাক প্রতিবন্ধীর স্বজনরা জানান, প্রতিবেদন তৈরির সাথে যারা যুক্ত তারাই তাকে সব কিছু শিখিয়ে দিয়েছিলেন। 

কোন প্রমাণ ছাড়াই অসত্য তথ্য প্রচার করে বাংলাদেশবিরোধী অপতৎপরতার একাধিক নজির আছে টেলিভিশন চ্যানেলটির।

আল জাজিরার প্রচার-প্রপাগান্ডার নেপথ্যে যে নামটি সবচেয়ে বেশি আলোচিত, তিনি হলেন ব্রিটিশ সাংবাদিক ডেভিড বার্গম্যান। বাংলাদেশের কয়েকটি দৈনিক পত্রিকায় কাজ করা এই সাংবাদিক বিবাহ সূত্রে এক সময় বাংলাদেশে অবস্থান করতেন। যুদ্ধাপরাধের বিচার বানচালের ষড়যন্ত্রের সাথে জড়িত থাকা বার্গমান মুক্তিযুদ্ধে ৩০ লাখ শহীদের আত্মদান নিয়ে ব্যঙ্গ-বিদ্রুপ করার দুঃসাহসও দেখিয়েছেন। একাধিকবার আদালত অবমানার দায়ে দোষীও সাব্যস্ত হয়েছেন বিতর্কিত এই সাংবাদিক। যুদ্ধাপরাধীদের পক্ষে পশ্চিমা বিশ্বের প্রভাবশালী দেশগুলোতে লবিস্ট নিয়োগের দায়িত্ব পালন করা বার্গম্যান বিএনপি-জামায়াতের পক্ষে বরাবরই সোচ্চার।

আল জাজিরায় প্রচারিত প্রোপাগান্ডায় জড়িত আরও এক নাম- তাসনিম খলিল। ইউরোপে বসে বাংলাদেশের সেনাবাহিনী, পুলিশ-র‌্যাব, মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্ব দেয়া রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগ, মুক্তিযোদ্ধা, বাম সংগঠন ও অসাম্প্রদায়িক শক্তির বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছেন তিনি। 

ডেভিভ বার্গম্যান ও তাসনিম খলিলের আরেক সহযোগী পিনাকী ভট্টাচার্য্য। আল জাজিরায় বাংলাদেশবিরোধী প্রচারণায় দেশি-বিদেশি যে চক্রটি জড়িত, তাদের সমন্বয়কারীর দায়িত্ব পালন করেন পিনাকী। বাংলাদেশবিরোধী অপপ্রচারের মিশন বাস্তবায়ন করছেন ইউরোপ থেকে। 

আল জাজিরায় বাংলাদেশবিরোধী অপপ্রচারের সাথে জড়িত আরেকটি নাম সম্প্রতি বেশ আলোচিত হচ্ছে। তিনি হলেন হাঙ্গেরি প্রবাসী সামি। বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে নাটক ও সিনেমা পাড়া দাঁপিয়ে বেড়ানো এই সামি বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও তার বন্ধু গিয়াসউদ্দিন আল মামুনেরও ঘনিষ্ট। ইউরোপে তারেক-মামুনের ব্যবসাও দেখাশোনা করেন এই সামি।

ডেভিড বার্গম্যান, তাসনিম খলিল, পিনাকী ভট্টাচার্য্য ও সামি- আল জাজিরায় বাংলাদেশবিরোধী অপপ্রচার-প্রোপাগান্ডায় এই চারজনের ভূমিকা প্রকাশ্য। তাদের নেপথ্যে আছে দেশি-বিদেশি একাধিক কুচক্রী মহল। এসব চক্রের হোতাদের খূঁজে বের করাও জরুরি বলে মনে করছেন সচেতন নাগরিক সমাজ।

ভিডিও-

সূত্র-একুশে

বিথী/৮