সৈয়দপুর শাহারপাড়া ইউনিয়ন নির্বাচনের হালচাল

নৌকা নিয়ে টানাটানি ৬ জনের, ধানের শীষের একক প্রার্থী

নৌকা নিয়ে টানাটানি ৬ জনের, ধানের শীষের একক প্রার্থী

তাজ উদ্দিন আহমদ  : : 


আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন নিয়ে দেশব্যাপী শুরু হয়েছে আলাপ-আলোচনা। সম্ভাব্য প্রার্থীরা ইতিমধ্যে মাঠে নেমে পড়েছেন। বিভিন্ন মাধ্যমে জানান দিচ্ছেন নিজের প্রার্থীতার। যদিও নির্বাচনের আরও চার মাস বাকি। তবে থেমে নেই সম্ভাব্য প্রার্থীদের তৎপরতা। জনতার ভোটযুদ্ধে নামার আগে নৌকা ও ধানের শীষ প্রতীক প্রত্যাশীদের মোকাবেলা করতে হবে নিজ দলের নেতাদের। আওয়ামী লীগ ও বিএনপি বড় রাজনৈতিক দল হওয়ায় প্রতিটি ইউনিয়নেই একাধিক নেতাকর্মী থাকেন দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশায়।

সারা দেশের ন্যায় সুনামগঞ্জ জেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলসহ সর্বক্ষেত্রে লেগেছে ইউনিয়ন নির্বাচনের হাওয়া। বিশেষ করে প্রবাসী অধ্যূষিত জগন্নাথপুর উপজেলার সৈয়দপুর শাহারপাড়া ইউনিয়নে সম্ভাব্য প্রার্থীরা এখনই দেশে-বিদেশে তৎপর হয়ে উঠেছেন। একাধিক প্রার্থী যুক্তরাজ্য থেকেই নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। প্রবাসে থাকা আত্মীয়স্বজন ও দলীয় নেতাকর্মীদের সমর্থন নিয়ে নির্বাচনের আগে দেশে ফিরবেন তারা। বর্তমানে দেশে থাকা আত্মীয়স্বজন ও বন্ধুবান্ধবসহ দলীয় নেতাকর্মীদের মাধ্যমে সব সময় মাঠের খবর নিচ্ছেন। নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর দেশে এসে সরাসরি ভোটযুদ্ধে মাঠে নামবেন।
ইতিমধ্য এলাকায় নিজের ছবি সম্বলিত বিলবোর্ড, ফেস্টুন লাগিয়ে কেউ কেউ নিজের প্রার্থীতার জানান দিচ্ছেন।

গত নির্বাচনে সৈয়দপুর শাহারপাড়া ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মো. আবুল হাসান ও বিএনপির সৈয়দ মোসাব্বির আহমদকে হারিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈয়ব মিয়া কামালী। আসন্ন নির্বাচনে ইউনিয়নে নৌকা নিয়ে টানাটানি করছেন ৬ জন। বিপরীতে ধানের শীষের রয়েছে একক প্রার্থী।


সৈয়দপুর শাহারপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি সালেহ আহমদ ছোট মিয়া জানান, আসন্ন ইউনিয়ন নির্বাচনকে সামনে রেখে আওয়ামী লীগের একাধিক প্রার্থী মাঠে রয়েছেন। নৌকা নিয়ে যে নির্বাচন করবে তাকে বিজয়ী করতে সর্বশক্তি প্রয়োগ করা হবে। এই ইউনিয়নে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করে জননেত্রী শেখ হাসিনাকে উপহার দেয়া হবে।

এই ইউনিয়নে দলীয় প্রার্থী নিয়ে আওয়ামী লীগ বিড়ম্বনায় থাকলেও সুবিধাজনক অবস্থানে বিএনপি। এখন পর্যন্ত সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির সহ ত্রাণ ও পুনর্বাসন সম্পাদক এবং জগন্নাথপুর উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ মোসাব্বির আহমদ দলের একক প্রার্থী হিসেবে মাঠে রয়েছেন। তিনি জানান, গত নির্বাচনে আমি দলীয় প্রার্থী ছিলাম। এবারও বিএনপির দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে তিনি আশাবাদী। 

ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক রাহিন আহমদ তালুকদার জানান, সৈয়দ মোসাব্বির এখন পর্যন্ত বিএনপির একক প্রার্থী। দলীয় মনোনয়ন পেয়ে ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচন করলে দলীয় নেতাকর্মীরা তাকে বিজয়ী করতে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করবেন।

সৈয়দপুর শাহারপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী হাফ ডজন নেতাকর্মী। নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করতে তারা এখন জোর তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছেন। স্থানীয় আওয়ামী লীগ ছাড়াও উপজেলা ও জেলা আওয়ামী লীগ নেতাদে সমর্থন আদায়ে ব্যস্ত রয়েছেন।

সৈয়দপুর শাহারপাড়া ইউনিয়নে নৌকার মাঝি হতে চান সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য, বর্তমান চেয়াম্যান তৈয়ব মিয়া কামালী, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ নেতা, সাবেক চেয়ারম্যান মো. আবুল হাসান, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ নেতা আলহাজ্ব আব্দুল মুকিত, যুক্তরাজ্যের সাউথশিল্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মো. মকসুদ কোরেশী, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ নেতা শিপার মিয়া ও সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ নেতা সৈয়দ হাছন আলী।