ছাতকে পুলিশি অভিযানের দৃশ্যও লাইভ করা হতো সেই পেইজ থেকে!

ছাতকে পুলিশি অভিযানের দৃশ্যও লাইভ করা হতো সেই পেইজ থেকে!

chzdjQ

 

 
হত্যা মামলার আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে পুলিশ। আর সেই সময় সরাসরি ভিডিও প্রচার করা হয়েছে ফেসবুকে। বিষয়টি নিয়ে পরের দিন সিলেটভিউসহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ায় সংবাদ প্রকাশের পর দেশব্যাপী সমালোচনার ঝড় ওঠে। ‘ছাতক টু সুনামগঞ্জ’ নামের যে ফেসবুক পেইজ থেকে ওই ভিডিও প্রচার করা হয়, সেই পেইজ থেকে ছাতক থানা পুলিশের বিভিন্ন অভিযানের দৃশ্যও লাইভ প্রচার করা হতো।

পেইজটিতে দেখা যায়, ছাতক থানায় হেফাজতের পদচ্যুত নেতা মামুনুল হকের অনুসারীদের হামলার পর আসামি গ্রেপ্তারের জন্য গত ৯ এপ্রিল ছাতকের গণেশপুর গ্রামে অভিযানে যায় ছাতক থানা পুলিশ। যাত্রা পথের শুরু থেকেই সেই দৃশ্য লাইভ প্রচার করা হয় সেই ফেসবুক পেইজ থেকে। লাইভ চলাকালে ক্যামেরার দিকে তাকিয়ে পুলিশ সদস্যদের বিভিন্ন অঙ্গভঙ্গি প্রকাশ করতেও দেখা যায়। যা দেখে আসামিরা নিরাপদ স্থানে পালিয়ে গিয়েছিল বলে স্থানীয়রা মন্তব্য করেন।

এছাড়া ছাতক থানার বিভিন্ন পুলিশ সদস্যদের পক্ষ থেকে ঈদ শুভেচ্ছা সম্বলিত পোস্টারও প্রচার করা হতো এই পেইজ থেকে। লাইভ প্রচারিত ভিডিও এই প্রতিবেদকের কাছে সংরক্ষিত আছে।

এদিকে নানা সমালোচনার পর এখনো পেইজটি আছে বহাল তবিয়তে। গতকালও স্থানীয় একটি হাডুডু খেলার ম্যাচ নিয়ে তিনবার লাইভ করা হয়েছে। শুক্রবারও লাইভ হয়েছে সেই পেইজ থেকে। ভিডিও বিভাগে খুঁজে পুলিশের অনেক প্রেস ব্রিফিং এবং অর্জনের লাইভের দেখা মিলেছে সেখানে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ফয়ছল আহমেদ নামের একজন ব্যবসায়ী বছর দেড় আগে খোলেন এই পেজটি। ছাতকের বিভিন্ন ইস্যুতে টাকার বিনিময়ে বিজ্ঞাপনসহ লাইভ করেন তাঁরা। পেইজটিতে প্রায় সাড়ে ১৮ হাজার লাইক ও প্রায় ৪৫ হাজার অনুসারী রয়েছেন।

মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করার পর ফয়ছলের বড় ভাই পরিচয়ে একজন বলেন, তিনি লাইভে আছেন, অনেক ব্যস্ত। ফ্রি হয়ে কথা বলবেন। ভিডিওর বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে, এখন কিছু বলা যাবে না।

প্রতিবেদকের কাছে ফয়ছলের একটি ভিজিটিং কার্ড রয়েছে। সেখানে আছে তিনি একাধারে ফটো সাংবাদিক- জাতীয় গণমুক্তি পত্রিকা, সহসভাপতি-ছাতক অনলাইন প্রেসক্লাব, চেয়ারম্যান-ছাতক টু সুনামগঞ্জ ফেসবুক অনলাইন টিভি চ্যানেল, স্বত্বাধিকারী-একতা স্যাটেলাইট কেবল নেটওয়ার্ক ও সাইফ এন্টারপ্রাইজ এবং সাধারণ সম্পাদক, বঙ্গবন্ধু তথ্য প্রযুক্তি লীগ, সুনামগঞ্জ জেলা।

এদিকে, হত্যা মামলার আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদ ফেসবুকে সরাসরি সম্প্রচারের ঘটনায় সুনামগঞ্জ জেলা পুলিশ দুই সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে বলে জানিয়েছেন সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান। তিনি জানান, তদন্ত কমিটির সদস্যরা এরই মধ্যে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।

এছাড়া ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত খুঁজে বের করার কথা জানিয়েছেন সিলেট রেঞ্জের উপ-পুলিশ মহাপরিদর্শক (ডিআইজি) মফিজ উদ্দিন।

এদিকে, ঘটনার বিষয়ে পুলিশ সদর দপ্তরও অবগত। এ বিষয়ে পুলিশের সহকারী মহাপরিদর্শক (এআইজি, মিডিয়া) কামরুজ্জামান রাসেল জানান, তদন্ত শেষে প্রতিবেদন দেখে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।